আপনার সন্তান তার স্মার্টফোনে কী দেখছে জানতে চান? ব্যবহার করুন এই সহজ পদ্ধতি

 


গেমবাজ ডেস্ক: প্রযুক্তির এই যুগে ছোট হোক বা বড় প্রত্যেকেরই হাতে একটি স্মার্টফোন আপনারা দেখতে পাবেন। তাছাড়া প্রযুক্তি যত উন্নতি করে চলেছে আস্তে আস্তে আরও নানান ডিভাইস উৎপন্ন হচ্ছে। প্রযুক্তির উন্নতি হওয়ার সাথে সাথে মানুষের চাহিদা বেড়েই চলেছে ফলে এই চাহিদায় বাদ যায়নি ছোট ছেলে মেয়েরাও। এক সময় ছিল যখন বাড়ির বড়দের কাছে একটি মাত্র ফিচার ফোন ছিল।কিন্তু প্রযুক্তির উন্নতির সাথে সাথে এখন ছোট একটি দু বছরের বাচ্চার হাতে স্মার্টফোন থাকে। 

 

যে স্মার্টফোনটিতে তারা দিনমান ইন্টারনেট ব্যবহার করে অনলাইন গেমস খেলে। এছাড়া প্রত্যেকেই এখন সোশ্যাল মিডিয়ার নেশায় মগ্ন রয়েছে। ছোট শিশু থেকে শুরু করে বড় ছাত্র-ছাত্রী প্রত্যেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় মগ্ন থাকে। পুরনো সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যাপ ব্যবহারের সাথে সাথে নতুন নতুন অ্যাপ তৈরি হয়েই যাচ্ছে। তবে এই স্মার্টফোন বড়দের তুলনায় ছোটরা বেশি ব্যবহার করে। 

 

তাই বেশি ক্ষতি হবার সম্ভাবনা এই ছোট বাচ্চাদেরই থেকে যায়। তবে এই স্মার্টফোনে যদি বাচ্চারা উল্টো পাল্টা কোন কাজ করে তা থেকে আপনি তাদের সরিয়ে আনতে পারবেন। একটি বিশেষ অ্যাপ রয়েছে যা থেকে বাচ্চাদের মোবাইল লক করা থেকে শুরু করে, তারা প্লে স্টোর থেকে কোন অ্যাপ ডাউনলোড করছে মোবাইলে কি করছে যাবতীয় জিনিস আপনি লক্ষ্য রাখতে পারবেন। 

 

গুগল প্লে-স্টোরে রয়েছে এমন একটি ফিচার যার নাম ফ্যামিলি লিংক। এই ফিচারের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন আপনার শিশু গুগল প্লে স্টোর থেকে কোন অ্যাপটি ডাউনলোড করছে। কোন সময় তার স্মার্টফোনটি কোথায় থাকে ইত্যাদি। এই ফিচারটি শুধুমাত্র ১৩ বছরের নিচের শিশুদের মোবাইল ফোন কন্ট্রোল করার জন্য উপলব্ধ। 

 

তবে যদি আপনি ছেলে মেয়েদের মোবাইলের গতিবিধির নিয়ন্ত্রণ করতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে তাদের পারমিশন লাগবে। এই ফিচারটি ব্যবহার করতে শিশু ও অভিভাবক দুজনেরই ফোনে একটি করে পাসওয়ার্ড লাগবে যেটি সেই ফিচারে এন্টার করলে দুজনের মোবাইল কানেক্ট হয়ে যাবে। তবে যদি সেই অভিভাবকের বাচ্চারা এই ফ্যামিলি লিংক থেকে বেরিয়ে আসতে চায় তাহলে তাদের পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করতে হবে। 

  

সে ক্ষেত্রে যদি কোনরকম পাসওয়ার্ড চেঞ্জ হয় তাহলে অভিভাবকের কাছে চলে যাবে নোটিফিকেশন। এক কথায় বাচ্চাটি করতে পারবে না এরকম কোন কাজ আর করলেও অভিভাবক জেনে যাবে। আর এভাবে আপনারা আপনাদের বাচ্চাদের স্মার্টফোনের সঙ্গে সবসময় সংযুক্ত থাকতে পারবেন। জানতে পারবেন তাদের স্মার্টফোনের সমস্ত তথ্য।

No comments:

Powered by Blogger.