থেকে থেকে ফুরিয়ে যাচ্ছে স্মার্টফোনের ব্যাটারি? সমাধানে রইল সহজ টিপস


Gamebazz ডেস্ক: সারাদিন ফোনে কথা বলার থেকেও অন্যান্য কাজে বেশি ব্যবহার হয় পকেটের ফোনটি। তাই স্মার্টফোনের ব্যাটারি কমতে শুরু করলে অনেকের কপালে ভাঁজ পরে। শুধুমাত্র গেম খেলে বা সিনেমা দেখার কারণে ফোনের ব্যাটারি শেষ হয় না। ডিসপ্লে অন থাকা, ডিসপ্লের বেশি ব্রাইটনেস, জিপিএস, ইন্টারনেটে বিজ্ঞাপন, ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকা অ্যাপ, ভুল চার্জরে ফোন চার্জ  এই কারণগুলিও সমানভাবে দায়ী।


খারাপ ব্যাটারি ব্যাকআপের সব থেকে বড় কারণ ফোনের ডিসপ্লে ব্রাইটনেস ফুল রাখা। এর ফলে বেশি ব্যাটারি খরচ হয়। তাই ব্রাইটনেস প্রয়োজন অনুযায়ী সেট করুন, বা ব্যবহার করুন অটো ব্রাইটনেস মোড। এতে ব্যাটারি খরচ কম হয়, আপনার ফোনও ঘন ঘন চার্জ ছাড়া বেশিক্ষণ চলবে।


স্মার্টফোনের স্ক্রিন অন টাইম কম করেও ব্যাটারি ব্যাকআপ বাড়াতে পারবেন। এ জন্য ১৫ সেকেন্ডের স্ক্রিন টাইমআউট ব্যবহার করুন। প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরাও মনে করেন, ১৫ সেকেন্ডের স্ক্রিন টাইমআউট একদম ঠিক।


ফোন বার বার চার্জে বসাবেন না। বেশিরভাগ সময় দেখা যায়, ৪০-৫০ শতাংশ ব্যাটারি থাকলেও লোকে ফোন চার্জে বসিয়ে দিচ্ছে। ২০ শতাংশের নীচে ব্যাটারি নেমে গেলে তবেই চার্জে বসান, আর মনে রাখবেন, কখনও পুরো ১০০ শতাংশ চার্জ করাবেন না। ৯০ শতাংশ হয়ে গেলেই চার্জ বন্ধ করুন, এতে ব্যাটারি বেশিদিন টেকে।


ফোনে ব্লুটুথ, ওয়াইফাই, জিপিএসের নিয়মিত ব্যবহার করি আমরা। কিন্তু ব্যবহারের পর তা বন্ধ করতে ভুলে যাই। এতে নষ্ট হয় ব্যাটারি।


ফোন সারাক্ষণ ভাইব্রেট মোডে রাখাও খারাপ, এতে ব্যাটারি দ্রুত শেষ হয়। তা ছাড়া আমাদের স্বাস্থ্যের পক্ষেও ভাইব্রেট মোড ক্ষতিকর। ফোন ছুঁলে বা কোনও বোতাম টিপলে যে ভাইব্রেশন হয় তাও বন্ধ রাখা উচিত, তাতেও ব্যাটারির ক্ষতি হয়।


যে ফোনের যে চার্জার, চার্জ দেওয়ার সময় সেই চার্জারই ব্যবহার করবেন। অন্য ফোনের চার্জার আপনার ফোন আর ব্যাটার দুটোই খারাপ করতে পারে। নকল চার্জার ব্যবহার কক্ষণও করবেন না।

No comments:

Powered by Blogger.