eSim কার্ড কি? আপনার ফোনে সাপোর্ট করবে তো ?


Gamebazz ডেস্ক: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির এই মেলবন্ধনের ফলে বিগত কয়েকবছরে যুগান্তকারী পরিবর্তন এসেছে মুঠোফোন এবং মোবাইল নেটওয়ার্ক জগতেও; একদিকে যেমন কী-প্যাড বা ফিচার ফোনের বদলে হাতে হাতে ঘুরছে হরেক রকমের স্মার্টফোন, তেমনি পরিবর্তন এসেছে ফোনের গুরুত্বপূর্ণ উপাদান সিম কার্ডেও। ফলে মাইক্রো সিম, ন্যানো সিমের পর এখন ধীরে ধীরে বাজার দখল করছে ই-সিম (eSim)। এই মুহূর্তে এই ই-সিম বহুলভাবে ব্যবহৃত না হলেও, এটিকে নিশ্চিত ভবিষ্যৎ হিসেবে দেখছেন অনেকেই। তবে যারা এখনো পর্যন্ত এই ই-সিম বিষয়টির সাথে পরিচিত নন তাদের জন্য আজ রইল এই খুঁটিনাটি তথ্যগুলি।


eSim (এমবেডেড সাবস্ক্রাইবার আইডেন্টিটি মডিউল) হল ডিজিটাল সিম যা কোনো স্মার্টফোনে চলতি ফিজিক্যাল সিমের বদলে তার সাথেই ইনসার্ট করা হয়।Jio, Airtel, Vi (ভোডাফোন-আইডিয়া)-এর মত জনপ্রিয় টেলিকম সংস্থাগুলি এই ডিজিটাল সিম অফার করে থাকে।ফিজিক্যাল সিমের মতই এই সিমও সম্পূর্ণ নিরাপদ। এমনকি এটির ইউজার প্রোফাইল স্যুইচ করার সময়েও অপারেটর কর্তৃক ভেরিফিকেশনের প্রয়োজন হয়।আগ্রহীদের জানিয়ে রাখি এই ডিজিটাল সিমের পরিষেবা সক্রিয় হতে খুবই কম সময় লাগে। যেমন ভোডাফোনের ক্ষেত্রে QR কোড স্ক্যান করার পর মাত্র ২ ঘন্টার মধ্যেই ই-সিম চালু হয়ে যায়।


Apple-এর iPhone 12 সিরিজের সমস্ত প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেট (অর্থাৎ iPhone 12, iPhone 12 mini, iPhone 12 Pro, iPhone 12 Pro Max) এবং iPhone 11, iPhone 11 Pro, iPhone 11 Pro Max, iPhone SE, iPhone XS, iPhone XS Max, iPhone XR মডেলগুলিতে এই ই-সিম সাপোর্ট করে। অন্যদিকে, Samsung Galaxy Z Flip, Galaxy Note 20, Galaxy Note 20 Ultra এবং Samsung Galaxy Fold 2 ডিভাইসগুলিতে রয়েছে ই-সিম সাপোর্ট। এছাড়া, Motorola Razr এবং Google Pixel 3A ও তার পরের মডেলগুলিও ই-সিমের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।


No comments:

Powered by Blogger.